শনিবার, অক্টোবর ১, ২০২২
- বিজ্ঞাপন -

ভিপিএন কি, ভিপিএন কিভাবে কাজ করে

আসসালামু আলাইকুম, উড্ডয়নে আপনাকে স্বাগতম!
আশা করি আল্লাহর রহমতে ভালোই আছেন।

আজ আমরা কথা বলবো ভিপিএন বা ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক নিয়ে।

ভিপিএন এর পূর্ণরূপ ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক, ভার্চুয়াল মানেই বুঝতে পারছেন এটি অদৃশ্যমান। ভিপিএন (ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক) হচ্ছে একটি সফটওয়্যার বা অ্যাপ যার মাধ্যমে আপনি আপনার পাবলিক নেটওয়ার্ক ব্যবহারের সময় প্রাইভেট (ভার্চুয়াল) নেটওয়ার্ক এর সব সুবিধা নিতে পারবেন, এটি সাধারণ ইন্টারনেট ব্যাবহারের মতই, যেন আপনি সরাসরি একটি প্রাইভেট নেটওয়ার্ক -এ যুক্ত আছেন। এই ভিপিএন (ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক) ব্যাবহারের ফলে আপনি যে কোন ধরনের ওয়েবসাইট বা সফটওয়্যার ব্যাবহার করতে পারবেন যা হয়ত আপনার সাধারণ নেটওয়ার্ক থেকে এক্সেস করা যায় না। ভিপিএন ব্যবহার করে আপনি যদি কোন শেয়ার্ড / পাবলিক নেটওয়ার্ক -এও যুক্ত থাকেন আপনাকে কেউ ট্র্যাক করতে পারবে না, ভিপিএন (ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক) মূলত আপনার অরিজিনাল শেয়ার্ড / পাবলিক আইপি হাইড করে আপনাকে নিরবিচ্ছিন সেবা / কানেক্টিভিটি প্রদান করে থাকে। বিভিন্ন সময় ইন্টারনেট -এ নিজের গোপনীয়তা রক্ষার জন্য, কোন দেশ / সরকার থেকে নিষিদ্ধ আছে এমন ধরনের ওয়েবসাইট / সফটওয়্যার / অ্যাপস এ কোন ঝামেলা ও ট্র্যাকিং ছাড়া ব্যবহার করার জন্যই মূলত এই ভিপিএন বা ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক ব্যবহার করা হয়, এছাড়াও আরো অন্যান্য অনেক কারনে অনেকে ভিপিএন বা ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে থাকেন। ভিপিএন (ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক) খুব সহজে আপনার লোকেশন (আপনি যেখানে আছেন), আপনার আইপি এড্রেস (প্রতিটি নেটওয়ার্ক এর এক বা একাধিক আইপি থাকে) ভার্চুয়াল ভাবে বদলে দেয় সাথে র‍্যান্ডম লোকেশন / আইপি দেখায় যার কারনে ভিপিএন (ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক) ব্যবহারকারীদের লোকেশন / আইপি এড্রেস এর মাধ্যমে ট্র‍্যাক করা কষ্টকর বা সম্ভব হয় না। যায় ফলে আপনার গোপনীয়তা রক্ষা হয় এবং আপনি পেয়ে যান অনেক বাড়তি সুবিধা।

ভিপিএন কিভাবে কাজ করে?
প্রত্যেকটি ইন্টারনেট সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠানের এক / একধিক আইপি এড্রেস থাকে। আপনি যখন কোন আইএসপি (ইন্টারনেট সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠান) থেকে নেট কানেকশন নিবেন তারা আপনাকে একটি আইপি দিবে যার মাধ্যমে আপনি আপনার কম্পিউটারে নেট / ইন্টারনেট ব্যবহার করে থাকেন, আবার আপনি যদি মোবাইলের ডাটা / ইন্টারনেট ব্যবহার করেন সেক্ষেত্রেও দেখবেন আপনার একটি নির্দিষ্ট আইপি আছে বা প্রতিবার নেট / ডাটা অন করলে ভিন্নভিন্ন আইপি দেখায়, আপনার বর্তমান কানেক্ট থাকা আইপি দেখার জন্য (https://whatismyipaddress.com/) এই ওয়েবসাইট ভিজিট করে দেখে নিতে পারবেন। এখন আপনার আইএসপি / মোবাইল অপারেটর থেকে দেয়া আইপি দিয়ে যখন আপনি কোন সাইটে / সফটওয়্যার / অ্যাপস -এ ঢুকবেন / লগিন করবেন তখন সেই ভিজিট / লগিন ডাটা আপনার বর্তমান আইএসপি / মোবাইল অপারেটর তাদের আইপি দিয়ে আপনার লোকেশন খুব সহজেই ট্র্যাকিং করতে পারবে কারণ আপনার কানেক্ট করা আইপি তারা দিয়েছে এবং এটি প্রতিটি বাবহারকারীর জন্য একটি নিজস্ব পরিচয় / পরিচিতি হিসেবে কাজ করে। আর ভিপিএন (ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক) এর মূল কাজ হচ্ছে আপনার সেই মূল আইপি (আইএসপি / মোবাইল অপারেটর থেকে দেয়া) এড্রেস লুকিয়ে / হাইড করে রাখা; যার কারনে কেউই (আইএসপি / মোবাইল অপারেটর / অন্য কোন থার্ড পার্টি) আপনার আইপি এড্রেস ট্র্যাক করে দেখতে পারবে না আপনি কোন কোন ওয়েবসাইট -এ ব্রাউজ করছেন / কোন জায়গা থেকে এখন ইন্টারনেট ব্যবহার করছেন ইত্যাদি।

প্রতিটি ভিপিএন কোম্পানীর-ই নিজস্ব সার্ভার থাকে বা রয়েছে। আপনি যদি সেই সার্ভারে যুক্ত হন তবেই আপনি তাদের ভিপিএন (ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক) এর আওতায় চলে আসবেন। তাই ইন্টারনেট ব্যবহারের সময় আপনার বর্তমান লোকেশন / আইপির সাথে লোকাল আইএসপি / মোবাইল অপারেটর এর কোন সংযোগ থাকে না, এবং তখন আপনার ব্রাউজিং ডাটার সোর্স হয়ে যায় সেই ভিপিএন।
আপনি যেহেতু ভিপিএন (ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক) এর ডাটা ব্যবহার করছেন এবং কোন সাধারন সোর্স (আইএসপি / মোবাইল অপারেটর এর) থেকে সরাসরি ইন্টারনেট ব্যবহার করছেন না, তাই ইন্টারনেটের সংযোগদানকারী প্রতিষ্ঠান (আইএসপি / মোবাইল অপারেটর) বা অন্য কেউ আপনার ব্যাপারে কোন ধরনের তথ্য জানতে পারেনা। ভিপিএন (ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক) কোম্পানির ভিন্নভিন্ন দেশে ভিন্ন ভিন্ন সার্ভার থাকে, যা আপনি ব্যবহার করতে পারবেন আপনার পছন্দ অনুযায়ী।
মূলত এভাবেই ভিপিএন (ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক) আপনাকে আপনার পছন্দের সার্ভারে / প্রাইভেট নেটওয়ার্ক -এ যুক্ত করে দেয়, যার ফলে আপনি শেয়ার্ড / পাবলিক নেটওয়ার্কের অধীনে ইন্টারনেট / ডাটা ব্যবহার করলেও প্রাইভেট ইন্টারনেট / ডাটা নেটওয়ার্কের সুবিধা পেয়ে যান। যেমন আপনি বাংলাদেশে থেকে যেসকল ওয়েবসাইটে বাংলাদেশর আইএসপি / মোবাইল অপারেটর এর নেটওয়ার্ক দিয়ে এক্সেস করতে পারেন না, সেই সকল ওয়েবসাইট / সফটওয়্যার / অ্যাপস -এ ভিপিএন এর মাধ্যমে অন্য দেশের সার্ভার কানেক্ট করে ভার্চুয়াল নেটওয়ার্ক সুবিধার মাধ্যমে সেই ওয়েবসাইট / সফটওয়্যার / অ্যাপস এর এক্সেস নিতে পারবেন।
কারন আপনার দেশে ওই ওয়েবসাইট / সফটওয়্যার / অ্যাপস এর অনুমতি না থাকলেও যেই দেশে অনুমতি রয়েছে সেই দেশের সার্ভার ভার্চুয়ালি কানেক্ট করার মাধ্যমে আপনি আপনার দেশে ব্লক করা ওয়েবসাইট / সফটওয়্যার / অ্যাপস এ এক্সেস নিতে পারবেন।

একটি উদাহরণ দেইঃ
মনে করুন আপনি vk.com (ফেসবুক এর মত সোশ্যাল নেটওয়ার্ক) ওয়েবসাইটে ঢুকবেন, কিন্তু বাংলাদেশ থেকে vk.com -এ ঢুকার অনুমতি নেই, এখন আপনি যদি একটি ভিপিএন (ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক) দিয়ে অ্যামেরিকার সার্ভার কানেক্ট করেন তখন দেখবেন আপনি খুব সহজেই vk.com ওয়েবসাইটটিতে ঢুকতে / লগিন করতে পারবেন, কারণ vk.com বাংলাদেশ থেকে ব্লক হলেও অ্যামেরিকা থেকে ব্লক না। আর আপনি বাংলাদেশে বসেই ভিপিএন (ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক) এর মাধ্যমে অ্যামেরিকার আইপি ব্যবহার করছেন, এখন আপনার বর্তমান আইপি (ভিপিএন এর আইপি) যদি কেউ ট্র্যাক করে তখন সে দেখবে আপনি অ্যামেরিকায় আছেন। 🙂 🙂 🙂

আজকের এই আর্টিকেল এ আমরা জানলাম ভিপিএন (ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক) কি, ভিপিএন (ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক) কিভাবে কাজ করে ও এর গুরুত্ব।

আজকের মত এই পর্যন্তই, পরবর্তী পোস্টে অন্য কোন বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো সেই পর্যন্ত ভালো থাকবেন। আল্লাহ্‌ হাফেজ।

- বিজ্ঞাপন -
পূর্ববর্তী নিবন্ধব্র্যাক ব্যাংক আস্থা
সম্পর্কিত পোস্টগুলো
- বিজ্ঞাপন -

জনপ্রিয় পোস্টগুলো

- বিজ্ঞাপন -